**রংপুর নাগরিক সমাজ(RNS) সংগঠনের নিউজ পোর্টাল rnsnews24.com এ স্বাগতম।  *** প্রতিনিধি নিয়োগ*** রংপুর বিভাগের সকল জেলা ও রংপুর জেলার সকল উপজেলায় প্রতিনিধি নিয়োগ চলছে। যোগাযোগ- 01722-882770 ।  *** সবার আগে নির্ভুল সংবাদ পেতে নিয়মিত ভিজিট করুন।
শিরোনাম :
কাউনিয়ায় পূজা উদযাপন কমিটির সাথে আইন শৃঙ্খলা বাহিনির মতবিনিময় সভা চাঁদাবাজি করতে গিয়ে আটক জেলা যুব মহিলা লীগের আহবায়কের স্বামী ইমরান কাউনিয়ায় চার জুয়ারু গ্রেফতার রংপুর জেলা পরিষদ নির্বাচনে চেয়ারম্যান পদে বিদ্রোহী প্রার্থীও মুক্তিযোদ্ধা পীরগাছায় ওপেন হাউজ ডে তে জনগণের কথা শুনলেন পুলিশ সুপার রংপুর অবৈধভাবে বালু উত্তোলনকারীকে ৫০ হাজার টাকা জরিমানা রংপুর ডিসি কার্যালয়ে প্রতি বুধবার গণশুনানি, উপকৃত হচ্ছেন মানুষ রংপুরে পুষ্টি উপর র্কমশালা অনুষ্ঠিত বৃহস্পতিবার রংপুর সিটি কর্পোরেশনের দৃষ্টি নন্দন প্রধান ফটকের উদ্বোধন কাউনিয়ায় বাল্য বিয়ে প্রতিরোধ বিষয়ক সমন্বয় সভা
বেগম রোকেয়া বিশ্ববিদ্যালয় ক্যাম্পাসে ‘গায়ে হলুদ’ অনুষ্ঠান

বেগম রোকেয়া বিশ্ববিদ্যালয় ক্যাম্পাসে ‘গায়ে হলুদ’ অনুষ্ঠান

বেগম রোকেয়া বিশ্ববিদ্যালয় ক্যাম্পাসে ‘গায়ে হলুদ’ অনুষ্ঠান

‘হলদি বাটো, মেন্দি বাটো’ ইত্যাদি বিয়ের গীত গেয়ে কন্যাকে অশীর্বাদ করা হচ্ছে। শুধু গীতই নয় গানের পাশাপাশি চলছিল বিয়ের নাচও। এটি কোন বাড়িতে কিংবা কমিউনিটি সেন্টারে গায়ে হলুদের অনুষ্ঠান নয়। এটি উত্তরাঞ্চলের বিদ্যাপীঠ বেগম রোকেয়া বিশ^বিদ্যালয় ক্যাম্পাস।
গল্পটা বেগম রোকেয়া বিশ্ববিদ্যালয়ের (বেরোবি) অনন্যা নামের এক শিক্ষার্থীর গায়ে হলুদের অনুষ্ঠান। আর সেই অনুষ্ঠান ঘিরে বেরোবি ক্যাম্পাস হয়ে ওঠে আরও প্রাণবন্ত। ক্যাম্পাসের একটি ভবনের সামনে সাইকেলের গ্যারেজে সাজানো হয় হলুদ মঞ্চ। সেখানেই হলুদের যাবতীয় আনুষ্ঠানিকতা সম্পুর্ণ করা হয়।
অনন্যার বাড়ি খুলনায়। বিয়ে অক্টোবর মাসে। অনেক বন্ধু খুলনায় গিয়ে বিয়ের অনুষ্ঠানে যোগ দিতে পারবে না। তাই বন্ধুদের এই আয়োজন।
হলুদ অনুষ্ঠানে যোগ দেয়া বিশ্ববিদ্যালয়ের বাংলা বিভাগের প্রধান ড. তুহিন ওয়াদুদ বলেন, ‘লোক প্রশাসন বিভাগ থেকে স্নাতক শেষ করা শিক্ষার্থী অনন্যার বাড়ি খুলনায়। তার বিয়ে অক্টোবর মাসে। বন্ধুরা সবাই খুলনায় বিয়ের অনুষ্ঠানে অংশ নিতে পারবেন না। এ কারণে ক্যাম্পাসেই তার গায়ে হলুদের আয়োজন করেন বন্ধু-সহপাঠীরা। শিক্ষার্থীদের কাছ থেকে গায়ে হলুদের আমন্ত্রণ পেয়ে অনুষ্ঠানে যোগ দিতে পেরে খুব ভাল লেগেছে।
অনন্যার সহপাঠী আয়েশা মীম জানান, আয়োজন শেষে আমাদের ভালো লেগেছে। হলুদ অনুষ্ঠানে আমরা নেচে গেয়ে সুবজ ক্যাম্পাসকে প্রাণবন্ত করে তুলেছি। হলুদের অনুষ্ঠানের হইচই, আনন্দ আড্ডা সত্যি একটি ভিন্ন পরিবেশ এনে দিয়েছে।
বন্ধু লুবনা হক, ওবায়দুল্লাহ আতিকসহ কয়েকজন জানান, মনে হল বিয়ের অনুষ্ঠানে অনেকেই যেতে পারবে না। তাই এমন আয়োজন। আমাদের আয়োজনে বেশ কয়েকজন শিক্ষক যোগ দেয়ায় আমাদের অনুষ্ঠান আরও প্রাণবন্ত হয়ে উঠে। লোকপ্রশাসন বিভাগের প্রধান আসাদুজ্জামান মন্ডলসহ আরও কয়েকজন শিক্ষক এসেছিলেন আর্শীবাদ করতে। স্যারদের প্রতি আমরা কৃতজ্ঞ।
এদিকে অনন্যা বলেন, ‘বিয়ের এখনও দেরি রয়েছে। অনেক বন্ধু খুলনায় গিয়ে বিয়ের অনুষ্ঠানে যোগ দিতে পারবে না। তাই বন্ধুরা এই হলুদের আয়োজন করেছে। বন্ধুদের এই আয়োজন আমাকে মুগ্ধ করেছে। আমার কাছে বন্ধুত্বের এমন নির্দশন খুব ভাল লেগেছে।’ এটি আজীবন মনে থাকবে।

সংবাদটি সবাইকে জানাতে আপনার স্যোস্যাল অ্যাকাউন্ট দিয়ে শেয়ার করুন




©২০২২ সর্বস্বত্ব সংরক্ষিত। আর এন এস নিউজ ২৪.কম।